আমিরুল মোমেনীন মানিক-এর কবিতা । আমার মৃত্যু সংবাদ

গত রাতে টিভি স্ক্রলে আমার মৃত্যুর সংবাদ দেখে
যারা খুশি হয়েছিলেন
তাদের জন্য দুঃসংবাদ
সেটা ছিলো রাত্রিকালীন ডিউটিরত সাংবাদিকের ভুল।
না, আমি মরিনি।
যৌবনবতী ধানগাছের শপথ
আমি কখনোই মরতে পারি না।
আজ থেকে সহস্র বছর আগে আমি যেমন ছিলাম,
ঠিক এখনো আছি।
আমি আদি যুগের চর্যাপদের মধ্যে ছিলাম
নজরুলের বিদ্রোহীর মধ্যে ছিলাম
সুকান্তের আঠারো বছর বয়সের মধ্যে ছিলাম।

আপনি বলতে পারেন,
তাহলে আমি কি অমরত্বের সুধা পান করেছি?
অকপটেই বলছি, হ্যাঁ, কেয়ামত পর্যন্ত তা বটেই।

আমি আসলে একক কোন ব্যক্তি নই
আমি একটা কনসেপ্ট বা ধারণা বা মতাদর্শ
মতাদর্শের কখনো মৃত্যু হয় না
শুধু কালান্তরে একজনের মধ্য দিয়ে আরেকজনে প্রবাহিত হয়,
মনান্তরিত হয়।

এই যে দেখুন
দেখুন আমার হার্টে অস্ত্রোপচার করে
সেখানে আবুজর গিফারি, চেগুয়েভারা, টিপু সুলতান,
সুভাষ বসু, তিতুমীর হাসছেন…
কি, ভীষণ অবাক হচ্ছেন!
আপনাদের হৃদয় অপারেশন করলে শুধু দৃশ্যমান হয় ব্লক আর ব্লক…
আর আমারটা দেখুন
কেমন সতেজ সজীব সাহসে ভরপুর!

ফিনিক্স পাখি চিনেন?
আকাশ ছোঁয়ার স্বপ্নে আকাশে উড়তে উড়তে আকাশেই পুড়ে মরে।
সেই পুড়ে যাওয়া ছাইভস্ম থেকে আবার জন্ম নেয় নতুন ফিনিক্স।

আমি আসলে ফিনিক্স
আসলেই ফিনিক্স
আমার কোন মৃত্যু নেই
কিন্তু আপনাদের চোখে আমি শান্তিনগর টু রামপুরা
আসা যাওয়া করা একজন সাধারণ বাসযাত্রী…
আপনারা কেউ কেউ নিজেদের ভণ্ডামি ঢাকতে
বিপ্লব বিপ্লব বলে চিৎকার করেন
কিন্তু এই যে দেখুন আমি আমার আস্তিনে
তাজা বিপ্লব নিয়ে ঘুরছি…

তবে আমার ভীষণ কষ্ট যে
আমার হেটারদের জন্য কোন সুসংবাদ নেই।

কারণ প্রত্যেক অন্ধকারের উল্টোপিঠেই আমি
কারণ আমি জানি ভোরের সন্তুর কেবল আমার হাতেই
খলখল করে হেসে উঠবে…

আসলে আমিই ভোর
আমাকে স্পর্শ করুন
দেখুন পাঁচশ বছরের সুরভিত ইতিহাসের সুঘ্রাণ আমার গায়ে…

আসলে আমিই বিপ্লব
আসলে আমিই বিপ্লব
আসলে আমিই বিপ্লব
কারণ বিপ্লবের কোন মৃত্যু নেই।

SHARE

Leave a Reply