ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ইফসুর সাউথ এশিয়ান মিটিংয়ে শিবির সভাপতি “নির্যাতন স্বত্ত্বেও বাংলাদেশে ইসলামী আন্দোলন এগিয়ে যাচ্ছে”

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ডা. মো. ফখরুদ্দিন মানিক বলেছেন, স্যেকুলার আওয়ামী সরকার মিথ্যা ও ভিত্তিহীন মামলা দিয়ে দেশের ইসলামী আন্দোলনের শীর্ষ নেতৃবৃন্দকে গ্রেফতার করে রেখেছে। জামায়াত-শিবির ভীতি থেকেই তারা এ কাজ করছে। জামায়াত-শিবিরকে নির্মূলের লক্ষে তাদের অব্যাহত হামলা-মামলা-নির্যাতন স্বত্ত্বেও এ দেশের ইসলামী আন্দোলন এগিয়ে যাচ্ছে।
তিনি আজ বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় কনফারেন্স রুমে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শ্রীলঙ্কায় আয়োজিত দুই দিনব্যাপী ইফসু সাউথ এশিয়ান মিটিং’২০১১ এ অংশগ্রহণ করে বক্তব্যকালে এ কথা বলেন। ইফসু সেক্রেটারী জেনারেল ড. আহমেদ আব্দুল আত্তির সভাপতিত্বে কলম্বোয় আয়োজিত এ মিটিংয়ে পাকিস্তানের ইসলামী জমিয়ত-ই-তালাবা, ভারতের স্টুডেন্ট ইসলামিক অরগানাইজেশন ও শ্রীলঙ্কার ইসলামিক স্টুডেন্টস মুভমেন্টের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। শিবির সভাপতি এই প্রোগ্রামে সরাসরি অংশগ্রহনের কথা থাকলেও এয়ারপোর্টে ইমিগ্রেশনে বাঁধা দেয়ায় তিনি যেতে পারেননি। ভিডিও কনফারেন্স চলাকালে শিবির সেক্রেটারী জেনারেল মো. দেলাওয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক আব্দুল জব্বার, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক তৌহিদুর রহমান সুইট, স্কুল কার্যক্রম সম্পাদক মিজানুর রহমান সমাজ-সেবা সম্পাদক আতাউর রহমান বাচ্চু, আন্তর্জাতিক ও গবেষণা সম্পাদক এইচ.এম জুবায়ের, ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক আল মুত্তাকী বিল্লাহ, শিবির নেতা ফয়সাল নকীব ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি শাহীন আহমদ খান উপস্থিত ছিলেন।
শিবির সবাপতি বলেন, পুলিশি বাঁধা ও নির্যাতনের মাধ্যমে আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হচ্ছে। আওয়ামী সরকার যতই নির্যাতন করুক না কেন এ দেশে ইসলামী আন্দোলন দিনে দিনে আরো শক্তিশালী হয়ে উঠবে। তিনি ইফসুর সাথে শিবিরের চলমান ভাতৃপ্রতিম সম্পর্ক উত্তরোত্তর আরো সমুন্নত হওয়ার আশা প্রকাশ করেন এবং প্রোগ্রামে উপস্থিত নেতৃবৃন্দকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।
উল্লেখ্য যে, আগামীকাল ছাত্রশিবির সভাপতি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নিজেদের নিয়মিত কার্যক্রম প্রোগ্রামে আমন্ত্রিতদের সামনে তুলে ধরবেন।

SHARE

Leave a Reply