মুহাম্মাদ সা. সায়ীদ আবুবকর

অবাক কাণ্ড শোনো-
অন্ধকারে ডোবা ছিলো সবই;
আকাশ ছিলো, ছিলো না তার রবি;
তাই তো কোথাও দিন ছিলো না কোনো।

শোনো আজব কথা,
চোখের জায়গায় ঠিকই ছিলো চোখ
কিন্তু কোনো লোক
পেতো না যে দেখতে কিছু, কি পাতা কি লতা।

সাপকে তারা মানুষ ভেবে চুমা খেতো গালে
আর মানুষকে সাপ ভেবে যে করতো আঘাত খালি-
এমনি করেই মরতো সব অকালে;
হর্ষে শকুন দিতো করতালি।

চতুর্দিকে পাতা ছিলো জাল,
মানুষগুলো ঘুঘুর মতো আটকে যেতো তাতে;
এমনিভাবেই কাটতেছিল কাল,
জীবন শুধু ভরা ছিলো জাহান্নামের রাতে।

হঠাৎ হলো কী-
মিষ্টি আলোয় ঝলমলিয়ে উঠলো চারিদিক;
বিশ্বে আবার ফিরে এলো সোনার সকালটি,
ফুলের গাছে ফুল ফুটলো, উঠলো ডেকে পিক।

ব্যাপারখানা কী রে-
ভাবতেছিল সব;
অমনি গিয়ে দেখতে পেলো, মা আমিনার ছোট্ট কুটির ঘিরে
লোকেরা সব করছে কলরব:

“সে এসেছে, সে এসেছে, মুহাম্মাদ যাঁর নাম!
পড়ো সবাই সমস্বরে: সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।”

SHARE

Leave a Reply