সম্পাদকীয়

মনের পশু কোরবানি দে বনের পশুর আগে
আল্লাহ খুশি হবেরে তোর এমন অনুরাগে
– কবি মুহাম্মদ ইব্রাহিম বাহারী

ঈদুল আজহা। একে আবার কোরবানির ঈদও বলা হয়ে থাকে। প্রতি বছর মুসলিম মিল্লাত এ দিনে আল্লাহর রাহে তার সন্তুষ্টির জন্য পশু কোরবানি করে থাকে। কেন এই আয়োজন, কেন এই উৎসব তা সবারই জানা। হজরত ইবরাহিম (আ) আল্লাহর পরীক্ষায় মনের শুদ্ধতায় নিজেকে শাণিত করে বিজয়ী হোন। সেই ধারাবাহিকতায় মুসলিম উম্মাহ হজরত ইবরাহিম (আ)-এর স্মৃতিকে ধারণ করে নিজেদেরকে নতুন করে আত্মশুদ্ধি ও মনের পশুত্বকে দূরীভূত করার মানসে এই বিধানটিকে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণভাবে পালন করে থাকে। হজরত ইবরাহিম (আ)-এর ত্যাগ কোরবানির কাছে আমাদের ত্যাগ কোরবানির নজরানা কতটুকু তা আজ বিশ্লেষণের দাবিদার। একটি পশু জবেহ দেয়ার মাধ্যমে কি কাক্সিক্ষত সেই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারছি? সামনে আমাদের পরীক্ষা। চূড়ান্ত পরীক্ষা। হজরত ইবরাহিম (আ)-এর চরিত্রকে লালন করে, অত্যন্ত ধৈর্যের সাথে আগামী দিনের সেই চূড়ান্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার প্রয়াস ও প্রচেষ্টার দীপ্ত আহবান। সেই সাথে সাথে কবি কাজী নজরুল ইসলামের মতো আমরাও উদ্বেলিত কণ্ঠে উচ্চারণ করি-
সত্য মুক্তি স্বাধীন জীবন
লক্ষ্য শুধু যাদের
খোদার রাহে জীবন দিতে
ডাক পড়েছে তাদের।

২.
সাংবাদিকরা জাতির জাগ্রত বিবেক, এমন খেতাবে ভূষিত শ্লোগান থাকলেও আজ সাংবাদিকরা চরমভাবে লাঞ্ছিত হচ্ছেন প্রতিদিন। একজন সাংবাদিক অহর্নিশ ছুটে বেড়ান নতুনের সন্ধানে। জাগিয়ে তুলতে চান সমাজকে, আলোকচ্ছটা ছড়িয়ে দিতে চান জনপদের প্রতিটি প্রান্তে। সাংবাদিকতার মতো এ মহান পেশাকে আজ এক শ্রেণির স্বার্থান্বেষী মহল হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে। যার ফলে সত্য ও সুন্দর আজ প্রভাতের আলোয় হেসে ওঠার সুযোগ থেকে বঞ্চিত। এমন পরিস্থিতির ভয়াবহতা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর আমাদের নৈতিক মূল্যবোধ ও বিশ্বাসের মূলে কুঠারাঘাত হানা হচ্ছে। সত্য প্রকাশে অন্তরায় সৃষ্টির এমন পরিস্থিতি মোটেও প্রত্যাশিত নয়। অন্যায়ভাবে বল প্রয়োগের মাধ্যমে গণমাধ্যমের নিয়ন্ত্রণ হাতের মুঠোয় পুরার হীনষড়যন্ত্র সত্যিই দুঃখজনক।

৩.
আজ দেশে গণতন্ত্র চর্চার সীমা-পরিসীমা, পরিধি সবার সামনে স্পষ্ট। সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর মাধ্যমে দেশে একনায়কতন্ত্র শাসনের অভিলাষ, অভিপ্রায় নিয়ে এটিই করা হয়। ফলে দেশের গণতন্ত্র আজ সাদা কাফনে মোড়ানো। ‘জোর যার মুল্লুক তার’ সর্বত্র বিরাজমান। অবৈধভাবে শাসন ও শোষণে আজ সাধারণ জনতা অতিষ্ঠ ও বিব্রত। জাতির ঘাড়ে চাপিয়ে দেয়া হয়েছে এক জগদ্দল পাথর। তবে আশার বাণী, গত পয়লা আগস্ট সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় প্রকাশিত হয়। এরই মাধ্যমে হারানো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আকাক্সক্ষা ব্যক্ত করেছে সর্বস্তরের জনগণ। আর জনতার এমন আশার প্রতিফলন ঘটুক শিগগিরই- এমনটি প্রত্যাশা আমাদেরও। হ

SHARE

Leave a Reply