সম্পাদকীয়

দুর্গম গিরি কান্তার- মরু দুস্তর পারাবার হে!
লঙ্ঘিতে হবে রাত্রি নিশীথে, যাত্রীরা হুঁশিয়ার।
দুলিতেছে তরী, ফুলিতেছে জল,
ভুলিতেছে মাঝি পথ-
ছিঁড়িয়াছে পাল কে ধরিবে হাল, আছে কার হিম্মত।
কে আছো জোয়ান, হও আগুয়ান, হাঁকিছে ভবিষ্যৎ
এ তুফান ভারি, দিতে হবে পাড়ি,
নিতে হবে তরী পার। (কাজী নজরুল ইসলাম)
এক বুক কষ্ট ও চাপা ক্ষোভ নিয়ে অতিবাহিত হচ্ছে নাগরিক জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত। প্রতি রাত ঘুমানোর আগে একটি সুন্দর সকালের প্রত্যাশার স্বপ্ন বুনে। কিন্তু প্রতিদিনের স্বপ্ন যেন অধরাই রয়ে যাচ্ছে। দিনকে দিন দুর্ভোগের ছায়া যেন আরো বেশি স্থায়ী হচ্ছে। একদলীয় শাসনব্যবস্থার চিরস্থায়ী আসন বিন্যাসের কাজটি এগিয়ে চলেছে। এমন বাংলাদেশের কল্পনা কেউ কি কখনো ভেবেছিলো! সর্বত্র একনায়কতন্ত্রের দাপুটে মনোভাবে কত আগেই না বিদায় নিয়েছে গণতন্ত্র ও সুশাসন। তবে এর কি কোনো সমাধান নেই?
এই দেশ আমাদের। এই মানচিত্র আমাদের। কোনো ব্যক্তি কিংবা কোনো দলীয় স্বার্থের কাছে আমরা আমাদের প্রিয় স্বদেশভূমিকে বিকিয়ে দিতে পারি না। তাই এ দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে রক্ষার জন্য ঐক্যবদ্ধ একটি আন্দোলন অনিবার্য হয়ে উঠেছে। আর অবরুদ্ধ এই গণতন্ত্রকে মুক্তির জন্য তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। বিকল্প কোনো পথ যেন খোলা নেই।
২.
একটি দেশ ও ইতিহাসের সোনালি অধ্যায় কিভাবে ম্লান হতে বসেছে তা জানতে চোখ রাখুন আজকের সিরিয়ায়। নির্বাচন আছে, সংসদ আছে। শুধু যেন মানুষের অধিকার নেই! সিরিয়া সরকারের মুখে গণতন্ত্রের ফেনা উঠলেও বাস্তব চিত্র ভিন্ন। শুধু সিরিয়া নয়, সারা বিশ্বে আজ মুসলমানরা লাঞ্ছিত হওয়ার একমাত্র কারণ নিজের ভেতর ঐক্য প্রতিষ্ঠা না থাকা। এই সুযোগে ইসলামবিদ্বেষীরা ফায়দা লুটে নিচ্ছে। আজ মুসলমানদের রক্তের ওপর নির্মাণ করছে তাদের ক্ষমতার মসনদ। তাদের কৌশল বুঝতে ব্যর্থ হলে আরো ভয়াবহ খেসারত দিতে হবে মুসলিম বিশ্বকে।
৩.
তোমার কাছ থেকে এসেছি
তোমার কাছেই ফিরে যেতে হবে
পৃথিবীর যত আলো আশা
যত প্রেম যত ভালোবাসা
সব কিছু ছিন্ন করে প্রভু
তোমার কাছেই ফিরে যেতে হবে।
(শেখ আবুল কাসেম মিঠুন)
সময় চলে যাচ্ছে তার নিজস্ব গতিতে। আমাদের জীবন থেকেও চলে যাচ্ছে কত না সময়। একটি জীবনের সূচনায় আরেকটি জীবনের অপেক্ষায় যেন এ পথ চলা। কিন্তু সেই জীবনের প্রস্তুতি কতটুকু সে হিসাব নিয়ে বসা দরকার। মহান প্রভুর কাছে তাই তো ফরিয়াদ করি- নিজেকে চেনার তুমি তাওফিক দাও খোদা/ তোমাকে চেনার তুমি তাওফিক দাও/ আলোয় দীপ্ত করো নয়ন আমার/ ভোরের বিভায় ভরো এ মন আমার/ তবু অচেনার যতো পর্দা সরাও।

SHARE

Leave a Reply