২০১৬ সেশনের বিআইসিএস এর নির্বাচন সম্পন্ন আতিকুর রহমান কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত সেক্রেটারি জেনারেল

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের ২০১৬ সেশনের জন্য কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচন ও সেক্রেটারি জেনারেল মনোনয়ন সম্পন্ন হয়েছে। ২০১৬ সালের জন্য কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মো: আতিকুর রহমান এবং সেক্রেটারি জেনারেল মনোনীত হয়েছেন মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত।
গত ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫ রাজধানীর একটি মিলনায়তনে ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদের অধিবেশনে নির্বাচিত কেন্দ্রীয় সভাপতির নাম ঘোষণা করা হয়। নাম ঘোষণার পর নবনির্বাচিত সভাপতিকে শপথ পাঠ করান ছাত্রশিবিরের সহকারী নির্বাচন কমিশনার ও সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি অ্যাডভোকেট মতিউর রহমান আকন্দ। গত ২৭ ডিসেম্বর ২০১৫ থেকে ২৯ ডিসেম্বর ২০১৫ পর্যন্ত সারা দেশে একযোগে কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। কেন্দ্রীয় সভাপতি ছাত্রশিবিরের সংবিধান অনুযায়ী ২০১৬ সেশনের জন্য কার্যকরী পরিষদের সাথে পরামর্শ করে মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাতকে সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে মনোনয়ন দান করেন।
মো: আতিকুর রহমান এর আগে সেক্রেটারি জেনারেল, দফতর সম্পাদক, সাহিত্য সম্পাদক, শিক্ষা সম্পাদক এবং ঢাকা মহানগরী উত্তর শাখার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত ইতঃপূর্বে কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক, সাহিত্য সম্পাদক, এইচআরডি সম্পাদক ও ঢাকা মহানগরী পূর্ব শাখার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় সভাপতি বর্তমানে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় কুষ্টিয়ায় এমফিল করছেন এবং নবমনোনীত সেক্রেটারি জেনারেল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স, মাস্টার্স শেষ করে বর্তমানে একই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এমফিল করছেন।
উল্লেখ্য, ছাত্রশিবির সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা এবং ইতিহাস-ঐতিহ্যের আলোকে প্রতি বছরের মতো এবারো গোপন ব্যালটের মাধ্যমে সারা দেশের সদস্যদের ভোট গ্রহণ করা হয়। সাধারণত প্রতি বছর ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সদস্য সম্মেলনে কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা এবং শপথ অনুষ্ঠান হয়ে থাকে। কিন্তু বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের দমন-নিপীড়নের ফলে গত কয়েক বছরের মতো এবারো কেন্দ্রীয় সদস্য সম্মেলন করা সম্ভব হয়নি। ফলে শিবিরের সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা ও সেক্রেটারি জেনারেল মনোনয়ন কার্যকরী পরিষদের অধিবেশনের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতির আলোকে কেন্দ্রীয় সদস্য সম্মেলন করা সম্ভব না হলেও শিবিরের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা অনুযায়ী প্রতি বছরই কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

SHARE

Leave a Reply