মোশাররফ হোসেন খানের কবিতা আবরার

হিংস্র হায়েনারা থাবা মেলে বারবার
অকালে ঝরে যায় ফুলের মতো কত যে আবরার।

মনে কি পড়ে বলো- লগি-বৈঠার সেই বীভৎস চিত্র
রক্তের সয়লাবে ভেসেছিল সবুজ মানচিত্র!
এখনো কষ্ট দেয় অষ্টপ্রহর
বুক কাঁপে থরথর
সেই অক্টোবরে শোনো এক নিদারুণ চিৎকার
হায়েনার আঘাতে ঝরে গেল প্রতিবাদী আবরার।

সকল মায়ের চোখ ছলোছলো
সকল হৃদয় আজ টলোমলো
হায়েনাদের কিভাবে মানুষ বলো, কিভাবে জানাবে ধিক্কার
ওরা তো মানুষ নয়, জঘন্য জানোয়ার
হায়েনার থাবায় ঝরে যায় কত যে আবরার।

কোটি মানুষকে জাগিয়ে গেছে এক আবরার
প্রতিবাদের ফুলকিতে বলে গেছে- এ জাতি নয় হারবার।
শক্ত হাতে হাত রাখো আজ
কঠিন শপথে তোলো জোর আওয়াজ-
কোনো হায়েনার অভয় অরণ্য হতে দেব না আর
কোটি তরুণের সাহস জাগিয়ে গেছে এক আবরার।

করো প্রতিবাদ
দাও অভিসম্পাত
এইতো সময় এখন বারুদ হয়ে জ্বলবার
হায়েনার আঘাতে আর যেন না ঝরে ফুলের মতো
কোনো আবরার।

বাতাসে ভেসে বেড়ায় নিদারুণ হাহাকার
সাহস ও সংগ্রামে জ্বলে ওঠো বারবার
কঠিন প্রতিবাদে জেগে ওঠো লাখো-কোটি আবরার।

তোমাদের পদতলে পিষ্ট হোক দানব-দানবীরা
জেগে ওঠো তরুণ, জেগে ওঠো সাহসীরা

আকাশ কাঁপিয়ে বলো-
আমরা জেগেছি, জাগো বাংলাদেশ, জাগো-
আবরার আবরার বলে আর কেঁদো না মাগো!

সাগরও ফুঁসে গেছে, পাহাড়ও ধ্বনি তোলে বারবার
এক আবরার জাগিয়ে গেছে ঘরে ঘরে সহস্র আবরার।

তারিখ : ১৩.১০.২০১৯

SHARE

Leave a Reply